1. kaiumkuakata@gmail.com : Ab kaium : Ab kaium
  2. akaskuakata@gmail.com : akas :
  3. mithukuakata@gmail.com : mithu :
  4. mizankuakata@gmail.com : mizan :
  5. habibullahkhanrabbi@gmail.com : rabbi :
  6. amaderkuakata.r@gmail.com : rumi sorif : rumi sorif
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ১০:৫৭ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ-
প্রতিটি জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। যোগাযোগঃ-০১৯১১১৪৫০৯১, ০১৭১২৭৪৫৬৭৪

ডোমারে আনছার আলী হসপিটাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের উদ্বোধন।।

  • আপডেট সময় বুধবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৯৬ বার

এমদাদুল হক মাসুম, ডোমার প্রতিনিধি:

স্বল্প খরচে উন্নতমানের চিকিৎসাসেবা ও সঠিক রোগ নির্ণয়ের লক্ষ্যে নীলফামারীর ডোমারে আনছার আলী হসপিটাল এন্ড ডায়াগনোস্টিক সেন্টারের উদ্বোধন করা হয়েছে।
বুধবার দুপুরে ডোমার-নীলফামারী সড়কের চিকনমাটি পাঠানপাড়া প্রশিকা মোড় সংলগ্ন এলাকায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফিতা কেটে প্রতিষ্ঠানটির উদ্বোধন করেন ডোমার উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ।
এসময় জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা সহিদার রহমান মানিক, ডোমার থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমান, প্রেসক্লাব সভাপতি মো. মোজাফ্ফর আলী, গোমানাতী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ, পৌর কাউন্সিলর মিজানুর রহমান তুলু, সাবেক কাউন্সিলর সেলিম রেজা, ট্রাক ট্রাংকলড়ি ইউনিয়নের সভাপতি মেরাজুল হক, আনছার আলী হসপিটাল এন্ড ডায়াগনোস্টিক সেন্টারের সত্ত্বাধিকারী অহিদুল্ল্যাহ, স্থানীয় মশিউর রহমান, আব্দুর রশীদ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। অবুষ্ঠান শেষে দেশ ও জাতির মঙ্গল ও শান্তি কামনায় দোয়া করা হয়।
আনছার আলী হসপিটাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সত্ত্বাধিকারী অহিদুল্ল্যাহ জানান, এখানে স্বল্প খরচে উন্নত ও আধুনিক মেশিনে বিভিন্ন প্রকার রোগ নির্ণয় করা হবে। বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দ্বারা বিভিন্ন ধরনের অপারেশন করা হবে। ২৪ ঘন্টা ডাক্তারের সেবা ও প্রশিক্ষিত নার্সের তত্ত্ববধানে প্রতিষ্ঠানটি বিশ্বস্ততার সাথে পরিচালনা করা হবে।
#
এমদাদুল হক মাসুম ডোমার প্রতিনিধিঃ -০১৭১৪৯৪৭১২৭

আপনার ফেইসবুকে শেয়ার করুন।

এরকম আরো খবর

পটুয়াখালী অগ্নিকাণ্ডে চারটি দোকান পুড়ে ছাই। পটুয়াখালী প্রতিনিধি।। পটুয়াখালী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সহকারী পরিচালক মো. জাকির হোসেন জানান, সোমবার রাত ৩টার পরে হঠাৎ করে শহরের কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠ এলাকা থেকে অগ্নিকাণ্ডের খবর আসে। খবর পেয়ে দ্রুত ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। দীর্ঘক্ষণের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্তু ততক্ষণে খাদিজার চায়ের দোকান, হানিফ মিয়ার গ্যাস সিলিন্ডারের দোকান, মালেক মিয়ার মুদি দোকান ও জাহাঙ্গীর নামের একজনের দোকান পুড়ে যায়। অগ্নি কান্ডে প্রায় ২০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেন ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা। তবে আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানাতে পারেনি পটুয়াখালী ফায়ার সার্ভিস।

© এই সাইটের কোন নিউজ/ অডিও/ভিডিও কপি করা দন্ডনিয় অপরাধ।
Created By Hafijur Rahman akas