1. kaiumkuakata@gmail.com : Ab kaium : Ab kaium
  2. akaskuakata@gmail.com : akas :
  3. mithukuakata@gmail.com : mithu :
  4. mizankuakata@gmail.com : mizan :
  5. habibullahkhanrabbi@gmail.com : rabbi :
  6. amaderkuakata.r@gmail.com : rumi sorif : rumi sorif
মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০১:০১ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ-
প্রতিটি জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। যোগাযোগঃ-০১৯১১১৪৫০৯১, ০১৭১২৭৪৫৬৭৪
শিরোনামঃ-
অন্যের স্ত্রী নগদ টাকা ও স্বর্নালঙ্কার চুরি; কলাপাড়ায় কথিত সাংবাদিকের নামে সমন জারি কলাপাড়া আন্ধার মানিক নদীর মোহনায় জলদস্যু জোংলা শাহালম বাহিনী কর্তৃক ট্রলার ডাকাতি, অপহরণ-১। রাজবাড়ীতে বিষাক্ত ইনজেকশন দিয়ে যৌন কর্মীকে হত্যা । বঙ্গোপসাগরে নৌ পুলিশের অভিযানে ১৬ জেলে আটক, ৪ ট্রলার মালিককে জরিমানা । কলাপাড়া উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মৎস্য বন্দর আলিপুরে ট্রলার মালিক ও মাঝি সমিতির বিক্ষোভ মিছিল মহিপুরে কোস্ট গার্ডের অভিযান,২ লাখ ৫০ হাজার বাগদা চিংড়ি রেনু জব্দ কুয়াকাটায় বিশ্ব সমুদ্র দিবসে জীব বৈচিত্র্য রক্ষার দাবি। ‘ও কিসের সাংবাদিক’? রাঙ্গাবালীতে প্রকাশ্য দিবালোকে ব্যবসায়ীর ১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা ছিনতাই রাজবাড়ীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগের পক্ষ থেকে বাজেট কে স্বাগত জানিয়ে গোয়ালন্দে আনন্দ মিছিল অনুষ্ঠিত হয় রাজবাড়ীতে গোয়ালন্দে গুরু খামারিদের মাঝে প্রদর্শনী ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয় কলাপাড়ায় প্রানীসম্পদ প্রদর্শনীর উদ্বোধন অনুষ্ঠিত ॥

কলাপাড়ায় ১৭৫০`শ পরিবারের মাঝে এমপি মহিব্বুর রহমানের ত্রান বিতরন।

  • আপডেট সময় বুধবার, ১২ মে, ২০২১
  • ১৯৮ বার

কলাপাড়া প্রতিনিধি।।

কলাপাড়া ও রাঙ্গাবালী ১৭৫০` শ পরিবারের মাঝে শাহজালাল ইসলামি ব্যাংকের সহায়তায় ত্রাণ বিতরণ করা হয়ে এসময়ে প্রতিটি পরিবারকে, চাল,ডাল, তৈল, চিনি,সেমাই, দুধ,বিতরণ করা হয়ে। ধুলাসার আলহাজ্ব জালাল উদ্দীন কলেজ মাঠে বিকাল ৪টায় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়ে।

এসময়ে উপস্থিত ছিলেন ১১৪ পটুয়াখালী ৪ আসনের সাংসদ সদস্য আলহাজ্ব মহিব্বুর রহমান (মহিব) আরো উপস্থিত ছিলেন ফাতেমা আক্তার রেখা, সভাপতি মহিলা আওয়ামীলীগ কলাপাড়া উপজেলা শাখা, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইউনুস মিয়া,সাধারণ সম্পাদক মোদাচ্ছের হাওলাদার,তরিকুল ইসলাম মৃর্ধা সহ স্থানীয় গন্যমান্য বাক্তিবর্গ।

এসময়ে এমপি মহিব্বুর রহমান বলেন
ঈদ শুধু আনন্দের নয় , সংযমের পথে চলা!
সুখ, দুঃখ হাসি কান্নায় ভরা ঈদের উৎসব।
দিনটিকে ঘিরে -বৃদ্ধা,শিশু-কিশোরসহ সব বয়সের মানুষের মনে এক অন্যরকম অনুভূতি জাগ্রত হয়।

বছরে দুটি ঈদ ভিন্ন আমেজ নিয়ে আসে বিশ্বময় মুসলমানদের জন্য। পবিত্র রমজান মাস হলো ঈদের আগাম বার্তা। তাই সব শ্রেণির মানুষ ভিন্ন ভিন্নভাবে প্রস্তুতি নিতে থাকে রোজার ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে। শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখার ওপর নির্ভর করে পবিত্র রমজান মাস। চাঁদ দেখা নিশ্চিত হলে রোজা শুরু। এরপর শুরু হয় সিয়াম সাধনার আর সংযমের পথে চলা। রোজার একটি মাস পরম করুণাময়ের মহিমান্বিত অন্যতম একটি মাস। এই সময়ে এই উপহার টা তাদের অনেক উপকারে আসবে।

এসময়ে ফাতেমা আক্তার রেখা বলেন,
প্রতি বছর আল্লার নৈকট্য লাভের আশায় সমগ্র মুসলিম জাতি অপেক্ষা করে। রোজার এ মাসটি অতিক্রমের পর উঁকি দেয় ঈদের খুশি।

ঈদ আনন্দ মুসলিম জাতির একটি ধর্মীয় উৎসব, ধনী-গরিবের অনাবিল আনন্দের একটি উৎসব । অথচ এই ঈদের আনন্দের মধ্যে ধনী-গরিবের সুস্পষ্ট ব্যবধান লক্ষণীয় একটি বিষয় আমাদের চলমান সমাজে। কেউ একটি জামার জন্য ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে পারে না, আবার কেউ অনেক দামী জামা গায়ে দিয়ে ঈদের আনন্দ সুপেয় নেয়। কেউ নিজের বাড়ির ঈদের মাঠে একটি লুঙ্গি-পাঞ্জাবি পড়ে ঈদের নামায পড়তে পারে না, আবার কেউ দামী পাঞ্জাবি-স্যুট পড়ে ঈদের নামায পড়তে চলে যায় বহির বিশ্বে । এই হল ঈদের আনন্দ। বেড়ানোর কথা না হয় বাদ দিলাম।

তবে বছরের বিশেষ এই দিনটির তাৎপর্য একজন বড়লোকের চেয়ে গরিবের কাছে অনেক বেশি বলে আমি বিশ্বাস করি। একজন গরিবের ঘরে ঈদের গুরুত্ব অপরিসীম এক কেজি মোটা সেমাই, এক কেজি চিনি, এক কেজি বয়লারের মুরগীর গোস্ত, ছোট ছোট ছেলে মেয়েদের কে সাধ্যের মধ্যে কিছু জামা কাপড় কিনে দেওয়া, পকেট খরচের জন্য কিছু বাড়তি টাকা হাতে রাখা এ যেন এক কল্পনাবিলাসী সুখের মত। অথচ এই সুখ টুকু উপভোগ করতে গরিবের অবস্থা হয়ে উঠে নাভিশ্বাস । কিন্তু কিছু করার থাকে না ঈদ বলে কথা। অন্য আর দশ জনের মত খানিকটা হলেও তো কিছু না কিছু করতে হবে। কোনও রকমে ঈদের আনন্দ শেষ হলে পড়ে বাড়ে নিজের দুর্ভোগ। এই হল গরিবের ঈদের আনন্দ। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বেঁচে থাকুক সকল পরিবার এই কামনা রইলো ঈদ মোবারক।

আপনার ফেইসবুকে শেয়ার করুন।

এরকম আরো খবর
© এই সাইটের কোন নিউজ/ অডিও/ভিডিও কপি করা দন্ডনিয় অপরাধ।
Created By Hafijur Rahman akas