1. kaiumkuakata@gmail.com : Ab kaium : Ab kaium
  2. akaskuakata@gmail.com : akas :
  3. mithukuakata@gmail.com : mithu :
  4. mizankuakata@gmail.com : mizan :
  5. habibullahkhanrabbi@gmail.com : rabbi :
  6. amaderkuakata.r@gmail.com : rumi sorif : rumi sorif
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ১০:১৫ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ-
প্রতিটি জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। যোগাযোগঃ-০১৯১১১৪৫০৯১, ০১৭১২৭৪৫৬৭৪

চন্দনপুরে বিট অফিসার ইসরাফিল হোসেনের সহযোগিতায় খাদে উল্টে যাওয়া আলমসাধু উদ্ধার করে প্রশাংসায় তিনি।।

  • আপডেট সময় শনিবার, ২২ আগস্ট, ২০২০
  • ৩৩০ বার

ফিরোজ জোয়ার্দ্দার সাতক্ষীরা প্রতিনিধি।।

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার শ্রীরামপুর জোড়া ব্রীজের পাঁকা রাস্তার পাশে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে উল্টে যাওয়া খালি আলমসাধু চন্দনপুর ইউনিয়নের বিট অফিসার থানার এসআই ইসরাফিল হোসেনের নেতৃত্বে স্থানীয় যুবকদের সহযোগী সেটি উদ্ধার করে প্রশাংসা ভাচ্ছেন তিনি।
শনিবার (২২ই আগস্ট) বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলায় শ্রীরামপুর জোড়া ব্রীজের পাঁকা রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যাওয়া আলমসাধুটি রসি দিয়ে টেনে উদ্ধার করে দিলে ইউনিয়নবাসী প্রশাংসা করেন পুলিশকে।
মানবতার ফেরিওয়ালা এসআই ইসরাফিল হোসেনকে আখ্যায়িত করে ‘পুলিশই জনতা, জনতায় পুলিশ- এই শ্লোগানকে সামনে রেখে পুলিশ বিপদে জণগনের বন্ধু আর অপরাধীর শত্রু হয়ে সমাজে অপরাধ মুলক কর্মকান্ড দমন করে যাবেন।
ঘটনার বিবরণে জানা যায়, চন্দনপুর ইউনিয়নের বিট অফিসার এসআই ইসরাফিল হোসেন, এসআই রফিকুল ইসলাম ও এএসআই কামাল হোসেন কলারোয়া থানা থেকে ডিউটিতে বের হয়ে চন্দনপুর বিটে যাওয়ার পথিমধ্যে দেখতে পায় শ্রীরামপুর জোড়া ব্রীজের পাঁকা রাস্তার পাশে খাদে একটি বড় আলমসাধু উল্টে পড়ে আছে।
তৎক্ষনিক নিজের মানবতাকে কাজে লাগিয়ে অন্য পুলিশ সদস্যদের সাথে নিয়ে স্থানীয় যুবকদের সহযোগীতায় রশি দিয়ে টেনে আলমসাধুটি খাদ থেকে উদ্ধার করে দেন।
উদ্ধার হওয়া আলমসাধুর চালক থানা পুলিশের এসআই ইসরাফিল হোসেনসহ অন্য পুলিশ সদস্যদের কাছে কৃতজ্ঞ প্রকাশ করেন।
পরে বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে চন্দনপুর ইউনিয়নের মদনপুর ওভয়েরডাঙ্গা পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা নিয়ে দুই গ্রামের মধ্যে দীর্ঘদিন থেকে যে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল সেটি ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যসহ মুক্তিযোদ্ধা এবং গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে নিরাসন করতে সক্ষম হয়েছেন তিনি।
দুই গ্রামের মধ্যে চলে আসা দীর্ঘদিনের দ্বন্দ্ব অবসান ঘটিয়ে অবশেষে মীমাংসা করে দেওয়াতে বিট অফিসার এসআই ইসরাফিল হোসেন, এসআই রফিকুল ইসলাম ও এএসআই কামাল হোসেনকে ইউনিয়নবাসী ধন্যবাদ জানিয়ে প্রশাংসা করেন।
দুই গ্রামের মধ্যে পানি নিষ্কাশন নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে যে সমস্যা ছিলো সেটি স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি উপস্থিতিতে সমন্বয় করা বিট অফিসার ইসরাফিল হোসেন, সহকারী বিট অফিসার এসআই রফিকুল হাসান ও এএসআই কামাল হোসেন একত্রে দুই গ্রামের মধ্যে শান্তি বিরাজ করে নিরাসন করেন।

আপনার ফেইসবুকে শেয়ার করুন।

এরকম আরো খবর

পটুয়াখালী অগ্নিকাণ্ডে চারটি দোকান পুড়ে ছাই। পটুয়াখালী প্রতিনিধি।। পটুয়াখালী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সহকারী পরিচালক মো. জাকির হোসেন জানান, সোমবার রাত ৩টার পরে হঠাৎ করে শহরের কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠ এলাকা থেকে অগ্নিকাণ্ডের খবর আসে। খবর পেয়ে দ্রুত ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। দীর্ঘক্ষণের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্তু ততক্ষণে খাদিজার চায়ের দোকান, হানিফ মিয়ার গ্যাস সিলিন্ডারের দোকান, মালেক মিয়ার মুদি দোকান ও জাহাঙ্গীর নামের একজনের দোকান পুড়ে যায়। অগ্নি কান্ডে প্রায় ২০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেন ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা। তবে আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানাতে পারেনি পটুয়াখালী ফায়ার সার্ভিস।

© এই সাইটের কোন নিউজ/ অডিও/ভিডিও কপি করা দন্ডনিয় অপরাধ।
Created By Hafijur Rahman akas