1. kaiumkuakata@gmail.com : Ab kaium : Ab kaium
  2. akaskuakata@gmail.com : akas :
  3. mithukuakata@gmail.com : mithu :
  4. mizankuakata@gmail.com : mizan :
  5. habibullahkhanrabbi@gmail.com : rabbi :
  6. amaderkuakata.r@gmail.com : rumi sorif : rumi sorif
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:১৮ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ-
প্রতিটি জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। যোগাযোগঃ-০১৯১১১৪৫০৯১, ০১৭১২৭৪৫৬৭৪
শিরোনামঃ-

মহিপুরে এলজিইডি-এর আরসিসি সড়ক নির্মাণ কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ।

  • আপডেট সময় শনিবার, ৯ এপ্রিল, ২০২২
  • ৮০ বার

পটুয়াখালী প্রতিনিধি।।
পটুয়াখালীজেলাধীন কলাপাড়া উপজেলার মহিপুর থানার সামনে এলজিইডি-এর আরসিসি সড়ক নির্মাণ কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগে জানা যায়, কলাপাড়া উপজেলার স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অধীনে জিওবি মেইনটেন্যান্স ২ কোটি ৭১ লাখ টাকা ব্যয়ে বেড়িবাঁধের সড়কে প্রায় ১৯৫০ মিটার আরসিসি সড়কের নির্মাণ কাজের দায়িত্ব পান মহিউদ্দিন নামে এক ঠিকাদার। শুরু থেকেই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সড়ক নির্মাণ কাজে অনিয়ম করে আসছে। প্রথমত, সড়কে নিম্নমানের ইটের খোয়া,পাথর, বালু ও রড ব্যবহার করাকে কেন্দ্র করে স্থানীয়দের সঙ্গে বিতর্ক হয় সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের সাফ কনট্রাকটারের সাথে।

অপরদিকে সরেজমিন দেখা যায়, ঢালাই মিক্সিংয়ে ব্যাপক অনিয়ম ভাইব্রাটার না দিয়েই চলছে এই ঢালাই কাজ। একদিকে নিম্ন মানের পাথর তা আবার এক বস্তা সিমেন্টে পাঁচ করাই পাথরের পরিবর্তে সাত কারাই পাথর ও দুই কারাই বালুর পরিবর্তে তিন বল অথবা গাবলায় করে বালু দিয়ে ঢালাই মিক্সিং করা হয়েছে। কারাইয়ের পরিবর্তে গামলা ব্যবহারের কারণ হিসাবে জানা গেছে গামলা বেশি পরিমাণ বালু দেওয়া যায়। নিম্ন মানের পাথর ও ময়লা-আবর্জনা মিশ্রিত নিম্নমানের বালুর ব্যবহার হওয়ায় কাজের মান নিম্ন হয়েছে। অপরদিকে ৬ ইঞ্চি ঢালাইয়ের ক্ষেত্রে ৪/৫ ইঞ্চি ঢালাই করা হয়েছে। বিষয়টি উপজেলা প্রকৌশলী ও দায়িত্বরত কর্মকর্তাকে জানালে তারা কর্ণপাত না করে ঢালাইয়ের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। গোপন ক্যামেরা দিয়ে ঢালাই মিক্সিং-এর ভিডিও করা হয়। তাতে সবকিছু ফুটে উঠেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক প্রকৌশল অফিসের এক কর্মচারী মিডিয়াকে জানান, তদন্ত এলে এই সড়কের প্রথম অংশের ১০ মিটারের মধ্যে থেকে স্যাম্পল নিয়ে ল্যাবে পাঠানো হবে। কারণ এই ১০ মিটার কাজ সিডিউল অনুযায়ী করা হয়েছে। বাকি পুরো কাজই নয়ছয় করা হবে তিনি বলেন । সাংবাদিকদের ভিডিও করার বিষয়টি টের পেয়ে সড়কের সঙ্গে লাগানো প্রথম অংশের কাজ সিডিউল মোতাবেক করেন। কাজের অনিয়ম প্রসঙ্গে স্থানীয় বাসিন্দারা ও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সড়ক সংলগ্ন থাকা বাসিন্দারা বলেন যতই অনিয়ম হোকনা কেন? আমাদের রাস্তাটি অতি জরুরি প্রয়োজন। বাজারের অনেক ব্যবসায়ী বলেন, পুরো কাজেই অনিয়ম হচ্ছে । সড়ক নির্মাণ কাজে এক বস্তা সিমেন্টের সঙ্গে ৭ থেকে ৯ কারাই পাথর ও ৩/৪ টুপড়ি বালু দিয়ে ঢালাই মিক্সিং করা হয়েছে। তারা আরও বলেন, সংশ্লিষ্ট দায়িত্বরত কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবহিত করলে তিনি তাদের ওপর রেগে ওঠেন এবং অশালীন কথাবার্তা বলেন। এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করে তার রেসপন্স পাওয়া যায়নি।

আপনার ফেইসবুকে শেয়ার করুন।

এরকম আরো খবর
© এই সাইটের কোন নিউজ/ অডিও/ভিডিও কপি করা দন্ডনিয় অপরাধ।
Created By Hafijur Rahman akas