1. kaiumkuakata@gmail.com : Ab kaium : Ab kaium
  2. akaskuakata@gmail.com : akas :
  3. mithukuakata@gmail.com : mithu :
  4. mizankuakata@gmail.com : mizan :
  5. habibullahkhanrabbi@gmail.com : rabbi :
  6. amaderkuakata.r@gmail.com : rumi sorif : rumi sorif
শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৩:১৭ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ-
প্রতিটি জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। যোগাযোগঃ-০১৯১১১৪৫০৯১, ০১৭১২৭৪৫৬৭৪

কুয়াকাটায় রাখাইন মং সুইচিং হত্যা মামলা প্রত্যাহারে পৌর মেয়রের হুমকী, সিআইডিতে তদন্ত।।

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৩ মার্চ, ২০২২
  • ৬৮ বার

কুয়াকাটা প্রতিনিধি।।

কুয়াকাটায় আদিবাসী রাখাইন মং সুইচিং হত্যা মামলা প্রত্যাহারে কুয়াকাটা পৌর মেয়র মো: আনোয়ার হোসেন হাওলাদার কর্তৃক বাদীকে হুমকী প্রদানের অভিযোগ সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। কলাপাড়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট শোভন শাহরিয়ায়ে আদালত বৃহস্পতিবার বাদী চুচিং মং রাখাইনের নালিশী মামলা আমলে নিয়ে এ আদেশ প্রদান করেন।

এর আগে বাদী চুচিং মং গত ১৭ ফেব্রæয়ারী ২০২২ বিজ্ঞ আদালতে রাখাইন মং সুইচিং (৬৫) হত্যার ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করেন। যা আদালত ময়না তদন্ত ও সুরতহাল রিপোর্ট সংগ্রহ সাপেক্ষে আদেশের জন্য রেখে ২৭ ফেব্রæয়ারী জেলা প্রধান সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ প্রদান করেন। এর পর কুয়াকাটা পৌরসভার মেয়র আনোয়ারসহ অজ্ঞাত ৫ জন ১ মার্চ ২০২২ তদন্তাধীন উক্ত হত্যা মামলা প্রত্যাহারে মামলার বাদী ও স্বাক্ষীদের হুমকী প্রদান করেন বলে মামলার অভিযোগে বলা হয়। এমনকি পোষ্ট মর্টেম রিপোর্ট বের হওয়ার আগেই ভিকটিম পরিবারকে মৃত্যুর কারন আত্মহত্যা বলে মৃত্যু সনদ সরবরাহ করেন মেয়র।

এবিষয়ে কুয়াকাটা পৌরসভার মেয়র মো: আনোয়ার হোসেন হাওলাদার বলেন, চুচিং মংকে আমি চিনিনা, ্এ সম্পর্কে আমি কিছুও জানিনা, তাকে হুমকী দেয়ার কথাটি সম্পূর্ন মিথ্যা।

উল্লেখ্য, গত ১৯ নভেম্বর ২০২১ আদিবাসী রাখাইন মং সুইচিং এর লাশ কুয়াকাটা সৈকত থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। ভিকটিম পরিবার থেকে এটিকে বারবার হত্যা কান্ড বলে অভিযোগ করা হলেও একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করে মহিপুর থানা পুলিশ। এরপর দীর্ঘদিন মহিপুর থানায় গিয়েও ভিকটিমের ময়না তদন্ত ও সুরতহাল রিপোর্ট সংগ্রহে ব্যর্থ হয়ে আদালতে মামলা দায়ের করে ভিকটিমের ভাই চুচিং মং রাখাইন।

###

তাং: ০৩.০৩.২০২২ ইং:।

আপনার ফেইসবুকে শেয়ার করুন।

এরকম আরো খবর
© এই সাইটের কোন নিউজ/ অডিও/ভিডিও কপি করা দন্ডনিয় অপরাধ।
Created By Hafijur Rahman akas