1. kaiumkuakata@gmail.com : Ab kaium : Ab kaium
  2. akaskuakata@gmail.com : akas :
  3. mithukuakata@gmail.com : mithu :
  4. mizankuakata@gmail.com : mizan :
  5. habibullahkhanrabbi@gmail.com : rabbi :
  6. amaderkuakata.r@gmail.com : rumi sorif : rumi sorif
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ১১:০৫ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ-
প্রতিটি জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। যোগাযোগঃ-০১৯১১১৪৫০৯১, ০১৭১২৭৪৫৬৭৪

যুগ্ম কমিশনারের বরখাস্ত চেয়ে বেনাপোল কাস্টমস হাউসে বিক্ষোভ।

  • আপডেট সময় সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০
  • ২২৩ বার


মোঃ নজরুল ইসলাম বিশেষ প্রতিনিধি

ঢাকার কেরানীগঞ্জের পানগাঁও কাস্টমস হাউসের এক সিনিয়র রাজস্ব কর্মকর্তাকে মারধর, হেনস্থা ও লাঞ্ছিত করার অভিযোগে পানগাঁও কাস্টম হাউসের যুগ্ম কমিশনার মোঃ লুৎফুল কবিরকে বরখাস্তের দাবিতে বেনাপোল কাষ্টমস হাউসে বিক্ষোভ করেছে বাংলাদেশ কাস্টমস ভ্যাট অ্যান্ড এক্সিকিউটিভ অ্যাসোসিয়েশন (বাকাএভ) ও খুলনা কাস্টমস ভ্যাট অ্যান্ড এক্সিকিউটিভ অ্যাসোসিয়েশন (খুকাএভ)।

সোমবার (৩০ নভেম্বর) সকাল নয়টা থেকে কাজ বন্ধ রেখে দুপুর বারটা পর্যন্ত বেনাপোল কাস্টমস হাউসের ভিতরে বিক্ষোভ করছেন সংগঠনের নেতা কর্মিরা।

কাস্টমস কর্মকতারা জানায়, গত ২৫ নভেম্বর পানগাঁও কাস্টমস হাউসের যুগ্ম কমিশনার লুৎফুল কবিরের নিজ কক্ষে সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তাদের সামনে এক রাজস্ব কর্মকর্তাকে মারধর ও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। এরপর থেকে সারাদেশের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা ও রাজস্ব কর্মকর্তাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। একটি ফাইলের বিষয়ে অনৈতিক দাবি ছিল যুগ্ম কমিশনার লুৎফুল কবিরের। কিন্তু ওই রাজস্ব কর্মকর্তা সেটির বিরোধিতা করায় তাকে ডেকে নিয়ে মারধর করা হয়।

তারা আরো বলেন, অভিযুক্ত যুগ্ম কমিশনার শুধু কাস্টমস হাউজ পানগাঁও নয়, এর আগে যেসব কর্মস্থলে কর্মরত ছিলেন, সেখানেও কর্মকর্তা-কর্মচারী এমনকি স্টক হোল্ডারদের সঙ্গেও খারাপ ব্যবহার করেছেন। নানাবিধ অভিযোগে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার কথা থাকলেও অদৃশ্য কারণে সেসব অভিযোগের তদন্ত আলোর মুখ দেখেনি। ঘটনার পাঁচদিন অতিবাহিত হলেও এখনও যুগ্ম কমিশনারকে বরখাস্ত করা হয়নি। তাকে আমরা বরখাস্ত করার দাবি করছি। তা না হলে সকল ভ্যাট সার্কেল, কাস্টমস হাউস ও শুক্ল ষ্টেশনে কাজ বন্ধসহ কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বেনাপোল কাস্টমের রাজস্ব কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম, সাইদুল ইসলাম, স্বপন কুমার দাস, দেলোয়ার হোসেন, মিজানুর রহমান, আশরাফুল আলম, শফিকুর রহমান সহ দুই শতাধিক কর্মকতা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার ফেইসবুকে শেয়ার করুন।

এরকম আরো খবর

পটুয়াখালী অগ্নিকাণ্ডে চারটি দোকান পুড়ে ছাই। পটুয়াখালী প্রতিনিধি।। পটুয়াখালী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সহকারী পরিচালক মো. জাকির হোসেন জানান, সোমবার রাত ৩টার পরে হঠাৎ করে শহরের কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠ এলাকা থেকে অগ্নিকাণ্ডের খবর আসে। খবর পেয়ে দ্রুত ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। দীর্ঘক্ষণের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্তু ততক্ষণে খাদিজার চায়ের দোকান, হানিফ মিয়ার গ্যাস সিলিন্ডারের দোকান, মালেক মিয়ার মুদি দোকান ও জাহাঙ্গীর নামের একজনের দোকান পুড়ে যায়। অগ্নি কান্ডে প্রায় ২০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেন ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা। তবে আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানাতে পারেনি পটুয়াখালী ফায়ার সার্ভিস।

© এই সাইটের কোন নিউজ/ অডিও/ভিডিও কপি করা দন্ডনিয় অপরাধ।
Created By Hafijur Rahman akas