1. kaiumkuakata@gmail.com : Ab kaium : Ab kaium
  2. akaskuakata@gmail.com : akas :
  3. mithukuakata@gmail.com : mithu :
  4. mizankuakata@gmail.com : mizan :
  5. habibullahkhanrabbi@gmail.com : rabbi :
  6. amaderkuakata.r@gmail.com : rumi sorif : rumi sorif
বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:২৪ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ-
প্রতিটি জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। যোগাযোগঃ-০১৯১১১৪৫০৯১, ০১৭১২৭৪৫৬৭৪

রামগঞ্জ কিশোর গ্যাং হাবিবের হাতে হামলার শিকার রিয়াজ উদ্দিনের বসত ঘরে।।

  • আপডেট সময় সোমবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২০
  • ২৪০ বার

লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধি
মোঃ আরিফ হোসেন

লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার ৬ নং লামছর ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের হুড়িবাড়ির গিয়াস উদ্দিনের ছেলে মোঃ রিয়াজ উদ্দিনের ও তার বসত ঘরে হামলা চালায় রসুলপুর গ্রামে ভাটের বাড়ির মোঃ সোহাগ হোসেন এর ছেলে মোঃ হাবিব হোসেন।

রিয়াজ উদ্দিন বলেন আমি বেড়ির মাথায় চা দোকানে সামনে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় হঠাত করে হাবিব হুন্ডা চালিয়ে এসে আমার সাথে ধাক্কা দেয় দিয়ে সামনে গিয়ে গাড়ি ভেরেক করে আমাকে গাল মন্দ করতে থাকে গাল মন্দ কেনো করছ বলেই হাবিব কাছে এসে কিছু না বুঝার আগেই মারতে শুরু করে দোকান থেকে সবুজ সহ কয়েকজন এসে আমাকে উদ্ধার করে দোকানে বসায় রাখে ।
কিছু খনের মধ্যে হাবিব দেশি অস্ত্র হাতে নিয়ে আমার বাড়িতে আসে আমার খোঁজে এসে আমার ঘরে ঢুকে আমাকে না পেয়ে ঘরের আসবাবপত্র ভাংচুর করে এবং আলমারির তালা ভেঙ্গে আমার মায়ের টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে যায় যাবার সময় আমার ঘরের টিনের বেড়া ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে যায় ।

এই বিষয়ে হাবিবের মুঠো ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে সাংবাদিক পরিচয় পাওয়ার পর ফোন কেটে দেয় দুপুর ১২.২৯ মিনিটে হাবিব আবার সাংবাদিক আরিফ হোসেন কে ফোন দেয় দুপুর ১.১০ মিনিটে ফোন দিয়ে হাবিব সাংবাদিক আরিফ হোসেন কে বলে আপনি কেনো আমার বাড়ি তে গেছেন কেনো আমার মায়ের কাছ থেকে ৫০০ টাকা এনেছে ঠিক আছে আমি দেখতেছি আপনি সাংবাদিক আরিফ তো ।

খোঁজ নিয়ে জানা যায় দোকানে সামনে নাম না প্রকাশ করে অনেকেই বলেন হাবিব নিজেই অন্যায় করে বিনা দোষে কেনো রিয়াজ কে মারলো কেনো রিয়াজের ঘরে ঢুকে ভাঙচুর করলো আমার ভয়ে কিছু বলতে পারি নাই সবুজ প্রতিবাদ করলে সবুজ কেউ সে মারধর করে এবং হুমকি দেয় ।

রিয়াজ উদ্দিন বলেন খবর পেয়ে মোহাম্মদিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এমদাদুল হক এমদাদ এসে সব কিছু দেখে গেছেন ।

এই বিষয়ে মোহাম্মদিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এমদাদুল হক এমদাদ এর সাথে যোগাযোগ করতে সম্ভব হয় নি ।

আপনার ফেইসবুকে শেয়ার করুন।

এরকম আরো খবর
© এই সাইটের কোন নিউজ/ অডিও/ভিডিও কপি করা দন্ডনিয় অপরাধ।
Created By Hafijur Rahman akas