1. kaiumkuakata@gmail.com : Ab kaium : Ab kaium
  2. akaskuakata@gmail.com : akas :
  3. mithukuakata@gmail.com : mithu :
  4. mizankuakata@gmail.com : mizan :
  5. habibullahkhanrabbi@gmail.com : rabbi :
  6. amaderkuakata.r@gmail.com : rumi sorif : rumi sorif
বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৩৩ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ-
প্রতিটি জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। যোগাযোগঃ-০১৯১১১৪৫০৯১, ০১৭১২৭৪৫৬৭৪
শিরোনামঃ-
কলাপাড়ায় ইউপি নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় আট জন আহত। কলাপাড়া পৌর ছাত্রলীগ’র সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা চাঁদাবাজী মামলায় গ্রেফতার।। সাংবাদিক রেহেনার পরিবারকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ৫লাখ টাকা প্রদান করায় বিএমএসএফের কৃতজ্ঞতা। রবিউল ও রায়হান হত্যায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবীতে দাদু ভাই ছইল ফাউন্ডেশনের উদ্দোগে মানববন্ধন। রামগঞ্জ কিশোর গ্যাং হাবিবের হাতে হামলার শিকার রিয়াজ উদ্দিনের বসত ঘরে।। বেনাপোল কাস্টমস কর্তৃক শুল্কায়ন কার্যক্রম বন্ধের কারণে রাজস্ব আয় থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সরকার। তালতলীতে প্রচারণার শেষ দিন নৌকার প্রার্থীর মাইক ভাঙচুর। জাফলংয়ের ডাউকি নদী থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার।। বাগেরহাটে ৭ বছরের শিশু ধর্ষনের বিচার মাত্র ৭ দিনে।ধর্ষকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। ঢাকা আরিচা মহাসড়কে মুরগী বোঝাই পিকআপ ছিনতাই গ্রেফতার ৪।

কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করলেন (পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী)

  • আপডেট সময় শনিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২০
  • ৪৮ বার

কুৃয়াকাটা প্রতিনিধি।।
কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতকে আর্ন্তজাতিক মানের পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার।
পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্ণেল (অবঃ) জাহিদ ফারুক বলেছেন, ইতিমধ্যে পাউবো’র সচিব ও মহাপরিচলকসহ একটি প্রতিনিধি দল নেদারল্যান্ড ভ্রমন করেছেন। সেখানে জনগনের জন্য নদী ও সমুদ্র ভাঙন রোধে যে ধরনের প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে। একইভাবে ওই দেশের প্রযুক্তি ব্যবহার করে টেঁকসই বেড়িবাঁধসহ সৈকত ভাঙ্গন রোধে প্রকল্প নেয়া হবে। শনিবার শেষ বিকালে কুয়াকাটা সৈকতের ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শনকালে পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্ণেল (অবঃ) জাহিদ ফারুক এপি এসব কথা বলেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নদী ও সমুদ্রের চারিত্রিক বৈশিষ্ট নির্ণয় করে ভাঙন রোধে একটি প্রকল্প তৈরি করে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় পাঠানে হবে। সেখানে সম্ভাব্যতা যাচাই বাছাই শেষে একনেকে পাঠানোর হবে। এছাড়া উপকূলীয় বেড়িবাঁধ উন্নয়নে একটি প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে। এ প্রকল্পের কাজ শেষ হলেই কুয়াকাটা সৈকত ভাঙ্গন রক্ষার কাজ শুরু হবে। প্রতিমন্ত্রী বলেন সৈকতে অস্থায়ীভাবে দেয়া জিও ব্যাগ ও জিও টিউব ছিল ততদিন সৈকত ভাঙ্গেনি। স্থানীয় মানুষকে সচেতন হবে এগুলো যাতে নষ্ট না হয়।

এর আগে প্রতিমন্ত্রী সড়ক পথে কুয়াকাটায় আসেন। এর পর তিনি অস্বাভাবিক জোয়ারের প্রভাবে বিধ্বস্ত-বিপর্যস্ত পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত পরিদর্শন করেন। এসময় পটুয়াখালী ৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মহিব্বুর রহমান মহিব এমপি, পাউরো’র অতিরিক্ত মহাপরিচালক মো. হাবিবুর রহমান, বরিশাল বিভাগীয় প্রধান প্রকৌশলী মো.হারুন অর রশীদ, পাউবো’র প্রকল্প পরিচালক (সিইআইপি-১) মোহাম্মদ আলী, পাউবো’র পটুয়াখালী নির্বাহী প্রকৌশলী খান মোহাম্মদ ওয়ালীউজ্জামান, কলাপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম রাকিবুল আহসান, কুয়াকাটা পৌর মেয়র আব্দুল বারেক মোল্লাসহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এদিকে কুয়াকাটা সৈকত রক্ষায় ট্যুরিজম ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন সংগঠনের ব্যানারে প্রতিমন্ত্রীর সামনেই মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করেছে।

আপনার ফেইসবুকে শেয়ার করুন।

এরকম আরো খবর
© এই সাইটের কোন নিউজ/ অডিও/ভিডিও কপি করা দন্ডনিয় অপরাধ।
Created By Hafijur Rahman akas