1. kaiumkuakata@gmail.com : Ab kaium : Ab kaium
  2. akaskuakata@gmail.com : akas :
  3. mithukuakata@gmail.com : mithu :
  4. mizankuakata@gmail.com : mizan :
  5. habibullahkhanrabbi@gmail.com : rabbi :
  6. amaderkuakata.r@gmail.com : rumi sorif : rumi sorif
রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০৫:৪১ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ-
প্রতিটি জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। যোগাযোগঃ-০১৯১১১৪৫০৯১, ০১৭১২৭৪৫৬৭৪
শিরোনামঃ-
অন্যের স্ত্রী নগদ টাকা ও স্বর্নালঙ্কার চুরি; কলাপাড়ায় কথিত সাংবাদিকের নামে সমন জারি কলাপাড়া আন্ধার মানিক নদীর মোহনায় জলদস্যু জোংলা শাহালম বাহিনী কর্তৃক ট্রলার ডাকাতি, অপহরণ-১। বঙ্গোপসাগরে নৌ পুলিশের অভিযানে ১৬ জেলে আটক, ৪ ট্রলার মালিককে জরিমানা । কলাপাড়া উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মৎস্য বন্দর আলিপুরে ট্রলার মালিক ও মাঝি সমিতির বিক্ষোভ মিছিল মহিপুরে কোস্ট গার্ডের অভিযান,২ লাখ ৫০ হাজার বাগদা চিংড়ি রেনু জব্দ কুয়াকাটায় বিশ্ব সমুদ্র দিবসে জীব বৈচিত্র্য রক্ষার দাবি। ‘ও কিসের সাংবাদিক’? রাঙ্গাবালীতে প্রকাশ্য দিবালোকে ব্যবসায়ীর ১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা ছিনতাই রাজবাড়ীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগের পক্ষ থেকে বাজেট কে স্বাগত জানিয়ে গোয়ালন্দে আনন্দ মিছিল অনুষ্ঠিত হয় রাজবাড়ীতে গোয়ালন্দে গুরু খামারিদের মাঝে প্রদর্শনী ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয় কলাপাড়ায় প্রানীসম্পদ প্রদর্শনীর উদ্বোধন অনুষ্ঠিত ॥ কলাপাড়ায় ধর্ষনের নিউজ করায় সাংবাদিককে হত্যার হুমকি।

কুয়াকাটায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক নারীকে ধর্ষন। গ্রেফতার-১, ধর্ষক পলাতক।

  • আপডেট সময় সোমবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৪৩ বার

কুয়াকাটা ডেস্কঃ

পটুয়াখালী জেলার মহিপুর থানার কুয়াকাটায় একটি আবাসিক হোটেলে বিয়ের প্রলোভনে এক নারীকে। শনিবার রাতে আবাসিক হোটেল সোনার বাংলায় ধর্ষনের ঘটনাটি ঘটেছে। এঘটনায় রবিবার ওই নারী বাদী হয়ে দুইজনের নাম উল্লেখ করে ধর্ষন মামলা দায়ের করেছেন। মহিপুর থানা পুলিশ হোটেল ম্যানেজার ও ধর্ষনে সহযোগী শামিমকে (২০) গ্রেফতার করে দুপুরে কলাপাড়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করেছে । মামলার প্রধান আসামী আল আমিন (২২) পলাতক রয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘ সাত মাস ধরে ওই যুবতীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষন করে আসছে আলআমিন (২২) নামের ওই যুবক। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল যুবতীকে কুয়াকাটা সোনার বাংলা হোটেলের ১০৪ নস্বর কক্ষে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। পরে কক্ষের বাহির থেকে দরজা বন্ধ করে পালিয়ে যায় আল আমিন। পরে নির্যাতিতা ওই নারী তার পরিবারের কাছে ফোন দিলে তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই যুবতীকে উদ্ধার করে।

নির্যাতিতা নারীর পরিবারের সদস্যদের সূত্রে জানা গেছে, নির্যাতিতা নারী এবং ধর্ষক আল আমিন ওই আবাসিক হেটেলে রুম ভাড়া নেওয়ার কোন তথ্য হোটেল রেজিস্টারে অন্তর্ভুক্ত না করায় তাকেও ধর্ষন মামলার সহকারী হিসেবে মামলায় আসামী করা হয়েছে ।

মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান জানান, ধর্ষনে সহযোগিতাকারী শামিমকে গ্রেফতার করা হয়েছে, মামলার প্রধান আসামী আল-আমিনকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে এবং নির্যাতিতা নারীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পটুয়াখালী পাঠানো হয়েছে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান ।

আপনার ফেইসবুকে শেয়ার করুন।

এরকম আরো খবর
© এই সাইটের কোন নিউজ/ অডিও/ভিডিও কপি করা দন্ডনিয় অপরাধ।
Created By Hafijur Rahman akas