বাংলাদেশীরা রোজার বোনাস থেকে বঞ্চিত ৪ বছর

26
জুয়েল খন্দকার নিজস্ব প্রতিবেদকঃ- গত ৪ বছর যাবত মালদ্বীপে মুসলিমদেরকে দু”ভাগে বিভক্ত করে রোজার বোনাস থেকে বঞ্চিত করছেন মালদ্বীপ সরকারের হুকুমে বিভিন্ন কোম্পানি থেকে বাহিরের দেশের মুসলিমদের। তবে বাহিরের দেশের মুসলিমদের কথা বলতে গেলে মালদ্বীপে বাংলাদেশী আছে প্রায় ৬০ হাজারের মতোন আর অন্যান্যরা আছে প্রায় ৪৫ হাজারের মতো তবে ৪৫ হাজার থেকে, মুসলিম আছে প্রায় মাত্র ২০ হাজারের মতো।
তাহলে বাংলাদেশী শ্রমিক প্রায় ৩ হাজার আছে অমুসলিম, আর প্রায় ৫৭ হাজার মুসলিম বঞ্চিত হচ্ছে ঈদ কিংবা রোজার বোনাস থেকে। দুঃখ জনম হলেও সত্য যে বিগত ৫ বছর আগেও ঈদ বোনস দেওয়া ঠিকি ছিল কিন্তু বিগত সরকার আব্দুল্লাহ ইয়ামিন আব্দুল গাইয়ুম ক্ষমতায় এসে ঘোষণা দেন যে বাহিরের মুসলিমদের ঈদ কিংবা রোজার বোনাস না দিলেও কোম্পানির বিরোদ্ধে কোন পদক্ষেপ নিতে পারবেনা, তবে মালদ্বীভিয়ানদেরকে ঈদ,কিংবা রোজার বোনাস দিতেই হবে। ঘোষণার প্রথম বছরে কোন কোন কোম্পানি দিয়েছিল বাংলার ৫ হাজার, মালদ্বীভিয়ান রুপি ১ হাজার রুপি,আবার কেউ দেয়নি, কিন্তু তার পরের বছর থেকেই বন্ধ করে দিয়েছেন কোম্পানি গুলি, কিন্তু এবারেও নতুন সরকারি ইব্রাহীম মোহাম্মদ সোলেহ এসেও সেই ঘোষণাটি বহল রেখেছেন কোন পরিবর্তন আনেনি তিনিও।
কিন্তু দুঃখজনক হলে সত্য যে সরকারি সব কোম্পানি গুলিতেই বাহিরের মুসলিমদেরকে ঈদ কিংবা রোজার বোনাস দিয়ে থাকেন কিন্তু বেসরকারি প্রতিষ্ঠান গুলিতে দিচ্ছেনা। ঈদ কিংবা রোজার বোনাস পেতো বাংলার প্রায় ১৫ থেকে ১৭ হাজার টাকা কিন্তু বর্তমানে মুসলিমদের দু”ভাগে বিভক্ত করে সেটি বন্ধ করে দিয়েছেন। কারন একটাই বাংলাদেশ গভমেন্ট এই ব্যাপারে কিংবা কোন ব্যাপারে শক্তি প্রয়োগের ক্ষমতা রাখেনা বলে এমন আচরণ করা হচ্ছে তবে, প্রবাসীদের মধ্যে সব চাইতে ছোট ও অবহেলিতের চোখে দেখেন বাংলাদেশীদেরকে। তবে মালদ্বীভিয়ান এরা প্রবাসীদের চোখে এমন আচরনের কারনে গিন্নার পাত্র হয়েছেন, মুসলিমদেরকে দু”ভাগে বিভক্ত করে দেখার কোন কুরআন হাদিসে আছে কি এমন প্রশ্নো সকলের কাছে! মুসলিমেরা যদি ভাই ভাই হয়ে থাকে তাহলে এটা কেমন মুসলিম! রাসূল (সঃ) বলেন একজন মুমিন আরেক জন মুমিনের একি দেহের অঙ্গ একজন মুমিনের গায়ে যদি কাটার আগাত লাগে যেনো সাড়া পৃথিবীর মুমিনের গায়ে ব্যাথা লাগে। ( বুখারী ও মুসলিম শরীফের কিতাবের হাদিস)।
কিন্তু কোন মিল-ফ্যাক্টরির কাজ বাংলাদেশী ছাড়াও হয়না কিন্তু অধিকার পাচ্ছেনা বাংলাদেশীরা তবে বাংলাদেশ এম্বাসী গুলিতে কোন মামলার বিষয়ে কিংবা কোন সেভা চাইতে গেলেও তেমন কোন সেভা দেননা বলে মালদ্বীপ প্রবাসীদের অনেক অভিযোগ রয়েছে সব বিষয় গুলির দিকে আরো নজর দেওয়ার প্রয়োজন প্রবাসী রেমিটেন্স যোদ্ধাদের দায়িত্বশীলদের

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here