ভুমিদস্যুের থাবা এবার প্রতিবন্ধীদের জমির উপর

44

আমাদের কুয়াকাটা ডেস্ক।।

কুয়াকাটায় এবার প্রতিবন্ধীর জমি দখল করে বাউন্ডারী ওয়াল দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। কুয়াকাটা প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেছেন কুয়াকাটা সূর্যোদয় প্রতিবন্ধী সমিতির সভাপতি প্রতিবন্ধী আবু তাহের ভূইয়া।
সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে আবু তাহের ভূইয়া বলেন,প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব পরিচয় দিয়ে হাজী নজরুল ইসলা, হারুন অর রশিদ,সহিদুল ইসলাম,আনোয়ার হোসেন,জাকির হোসেন ও মনিরুল ইসলাম এবং তাদের কেয়ার টেকার সহিদুল ইসলাম মাঝি তাদের ৫০-৬০ বছরের ভোগদখলীয় জমি দখল করে জোরপুর্বক গাছ কাটাসহ বাউন্ডারী ওয়াল নির্মান করিতেছে। তাদেরকে বাধা দেওয়া হলেও তা তারা মানছেন না। থানায় অভিযোগ করার পর থানা থেকে পুলিশ এসে কাজ বন্ধ করে দেয়। পুলিশ চলে যাওয়ার পর আবার তারা কাজ শুরু করেন।
আবু তাহের আরো বলেন, মহিপুর থানাধীন লতাচাপলী মৌজার ৩৪ নং জেএল এস এ ১২৭৮ খতিয়ান এর ৫৪৩৭ নং দাগের প্রায় ১ একর জমি দখল করে বাউন্ডারী ওয়াল করিতেছে। ওই জমি নিয়ে আদালতে দেওয়ানী মোকাদ্দমা চলমান রয়েছে। আদালত থেকে তাদের পক্ষে ইনজাংশন জারি করা হয়েছে। তিনি বলেন, নজরুল ইসলাম গংদের জমি ৫২২/২২৮ নং খতিয়ানের ৫৪৩৫ দাগে। অথচ তারা ভোগ করছে তাদের রেকর্ডীয় ভোগদখলকৃত জমি। যাহার দাগ এবং খতিয়ান সম্পুর্ণ ভিন্ন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব নজরুল ইসলাম গংদের কেয়ার টেকার সহিদুল ইসলাম বলেন, নজরুল ইসলাম গংরা ২০০৭ সালে এই জমি ক্রয় করে ভোগদখলে আছেন। এই জমির দাবীদার আবু তাহের ভূইয়া গংরা কখনো ভোগদখলে ছিল না এবং ওই জমির মালিক তারা না। এস এ ১২৭৮ নং খতিয়ানের ৫৪৩৭ দাগের জমি বিএস জরিপে সরকারের নামে রেকর্ডভূক্ত হয়। বর্তমানে তাদের দাবীকৃত জমি বেরীবাঁধে চলে গেছে। তিনি আরো বলেন, আবু তাহের গংরা তাদের জমি দাবী করে মোটা অংকের চাঁদা দাবী করে আসছে। যা কুয়াকাটা পৌর মেয়র অবগত আছেন।
এ বিষয় কুয়াকাটা পৌর মেয়র আঃ বারেক মোল্লা বলেন,বিরোধীয় জমি নিয়ে দুই পক্ষকে ডেকে ফয়সালা করার চেষ্টা করেছি। কিন্তু তারা কেউ তা মানছেন না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here